আবারও নকিয়া সি১ বিষয়ক তথ্য ফাঁস

স্মার্টফোনের জগতে নকিয়ার পদচারণা নেই বেশ দীর্ঘ সময়। কারণটা অবশ্য নকিয়াপ্রেমীরা খুব ভালো করেই জানেন। তবে নকিয়া’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব সুরি তাদেরকে অনেকটা আশাপ্রদ কথা শুনিয়েছেন – নকিয়ার এই অনুপস্থিতি মানে নিজেদেরকে সরিয়ে ফেলা নয়, বরং ২০১৬ সালের চতুর্থ প্রান্তিক শেষ হওয়ার অপেক্ষা করা যখন তাদের সাথে মাইক্রোসফটের চুক্তিটির মেয়াদ পূর্ণ হবে।

অনেক আগে থেকেই গুঞ্জন উঠেছে যে, নকিয়া সি১ হবে ফিনল্যান্ডের এই বিশ্বখ্যাত কোম্পানির লোগো ব্যবহার করা প্রথম স্মার্টফোন। এ দিকে গতকালই আবার একটি সূত্র থেকে নতুন করে ফোনটির সম্ভাব্য বৈশিষ্ট্যসহ বিস্তারিত জানা গেল। ফোনটি সম্পর্কে আমরা আগেরবার জেনেছিলাম এই একই সূত্র থেকে। ফলে এবার নতুন তথ্য জানা গেলেও তার সত্যতা সম্পর্কে সন্দেহ করার যথেষ্ট অবকাশ রয়ে গেছে।

যাহোক, নতুন যা কিছু জানা গেল সি১ সম্পর্কে তা হলো – ফোনটি ২ টি ভিন্ন আকারে বাজারে আসবে। এই দুই সেটের ক্যামেরার অবস্থানও ভিন্ন হবে। ডিসপ্লের আকার হতে পারে ৫.০ অথবা ৫.৫ ইঞ্চি যাতে থাকবে ফুলএইচডি রেজ্যুলুশন। প্রথম সংস্করণটিতে থাকছে ২ গিগাবাইট র‌্যাম ও ৩২ গিগাবাইট সংরক্ষণ ক্ষমতা। অন্যদিকে দ্বিতীয় সংস্করণটিতে থাকবে ৩ গিগাবাইট র‌্যাম ও ৬৪ গিগাবাইট সংরক্ষণ ক্ষমতা। হতে পারে এর মূল ক্যামেরা হবে ৮ বা ১৩ মেগাপিক্সেল আর সামনেরটি ৫ মেগাপিক্সেল। মজার বিষয় হল বলা হচ্ছে যে, সি১ চলবে উইন্ডোজ ১০ সহযোগে অ্যানড্রয়েডে। তবে ফোনটি পাওয়া যাবে নির্ধারিত কিছু দেশে।

বেনামী একটি সূত্রমতে নকিয়া সি১ যেহেতু দীর্ঘদিন ধরে তৈরি প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তাই এর মূল নক্শাটি বদলাতে হয়েছে। সেখানে যুক্ত হয়েছে উন্নততর ও আধুনিক হার্ডওয়্যারযুক্ত ফোনের নক্‌শা। এ তথ্য থেকে সি১ এর ২টি সংস্করণের সম্ভাব্যতা সম্পর্কে একটা ধারণা পাওয়া যায়। অবশ্য এই ধারণা কতোটা সত্যি সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্যে এখনও অনেক সময় হাতে আছে যদি সত্যি সত্যিই সি১ ২০১৬ এর ৪র্থ প্রান্তিকে আমাদের সামনে উপস্থিত হয়।

ADD YOUR COMMENT