পৃথিবীর সবচাইতে দামি অ্যানড্রয়েড স্মার্টফোন!!

প্রথমবার পৃথিবীর সবচাইতে দামি স্মার্টফোন নিয়ে এসেছে ইসরায়েলি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান সিরিন ল্যাবস। এই স্মার্টফোনের মাধ্যমে চিপ থেকে চিপে ২৫৬-বিট এনক্রিপশন করা যাবে।

সামরিক বাহিনীর সদস্যরা তাঁদের যোগাযোগ সুরক্ষিত ও গোপনীয় রাখতে যে প্রযুক্তি ব্যবহার করেন সেই প্রযুক্তিই ব্যবহার করা হয়েছে এই স্মার্টফোনে। আর তাই এর দামও আকাশচুম্বী, ১৪ হাজার মার্কিন ডলার।

android-smartphone-630x420

‘সোলারিন’ নামের এই ফোনকে বলা হচ্ছে স্মার্টফোন দুনিয়ার রোলস রয়েস। গত মঙ্গলবার লন্ডনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ফোনটি উন্মুক্ত করা হয়। খবর ভেঞ্চারবিট ডটকমের

সোলারিনে রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮১০ প্রসেসর, যা ওয়াই-ফাই সংযোগের চেয়েও দ্রুতগতিতে কাজ করবে বলে নির্মাতাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এতে রয়েছে ২৩ দশমিক ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা । এই ক্যামেরার সঙ্গে রয়েছে লেজার অটোফোকাস ও এফ/২.০ লেন্স। আর ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের। ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি আইপিএস এলইডি টুকে রেজ্যুলেশনের স্ক্রিন। ব্যাটারি রয়েছে ৪০০০ এমএএইচের।

সোলারিন পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ প্রযুক্তিতে তৈরি স্মার্টফোন। সিরিন ল্যাবসের সঙ্গে যৌথভাবে এই স্মার্টফোনের নিরাপত্তা প্রযুক্তির দেখভাল করেছে নিরাপত্তা প্রযুক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠান কুলস্প্যান।

সিরিন ল্যাবসের মতে, তারা পৃথিবীর সবচেয়ে আধুনিক স্মার্টফোনটি তৈরি করতে চেয়েছিল সবচেয়ে সুরক্ষিত প্রযুক্তি দ্বারা। অন্য যেকোনো অপারেটরের তুলনায় এই ফোনটি হবে গতিশীল এবং বিশ্বসেরা উপাদান দিয়ে ফোনটি তৈরি করা হবে।

সিরিন ল্যাবসের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী তাল কোহেন বলেন, ‘বিশ্বজুড়ে সাইবার আক্রমণের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এর ফলে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। আর ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা বজায় রাখতেই এ ধরনের ফোন নিয়ে এসেছি আমরা।’

সিরিন ল্যাবসের ভাইস প্রেসিডেন্ট ( প্রোডাক্টস) ফ্রেদরিক ওইজার বলেন, ‘সোলারিনের প্রত্যেকটি ডিজাইন ও উপাদান নির্বাচন করা হয়েছে এর গতিশীলতা ও কার্যকারিতার দিকে খেয়াল রেখে।’

লন্ডনে সিরিন ল্যাবসের প্রথম রিটেইল স্টোরে পাওয়া যাচ্ছ ফোনটি। অবশ্য এ ধরনের দামি ফোন এবারই প্রথম নয়। এর আগে ২০১১ সালে ‘কনস্টেলেশন’ নামের একটি দামি স্মার্টফোন বাজারে ছাড়া হয়েছিল যার দাম ছিল পাঁচ হাজার মার্কিন ডলার।

ADD YOUR COMMENT